লেনিন তুমি কোথায় আছো?



লেনিন তুমি কোথায় আছো

বড় ইচ্ছে হয় জানতে।

শুনেছি তুমি নাকি প্রতিবাদ করতে,

যেখানে অন্যায় দেখতে।



আজ তুমি কেন চুপ-চাপ আছো,

এতো অন্যায় দেখে।

তবে কি তোমার নীতি বদলে গেছে,

রাজনীতির স্বার্থে।



তোমার নামের দোহাই দিয়ে,

যারা দু-মুঠো অন্ন যোগায়।

তারাই দেখি অন্যায় দেখে,

চুপ-চাপ থেকে যায়।



শুনেছি সন্ত্রাস নাকি সন্ত্রাসই হয়,

তার কোন ধর্ম হয় না।

তবে কেন অন্যায়কে অন্যায় ভেবে,

তার প্রতিবাদ করা যায়না?



স্বার্থের জন্য যে নীতি বদলায়,

সেটাই কি আজ রাজনীতি?

ব্যক্তি স্বার্থে যারা চুপ থেকে যায়,

তারাই কি আজ নেতা-নেত্রী?



জেনে রাখো লেনিন আজ তুমি আছো

শুধুই পুঁথির পাতায়।

তাই তোমার নামের দোহাই দিয়ে,

অন্যায় হতে দেখা যায়।


আমি কোন কবি নই, তাই নিজেকে কবি বলে বা এই লেখাটিকে কবিতা বলে, প্রকৃত কবি এবং কবিতার অসন্মান করতে চাইনা। আমার মনে জমে থাকা যন্ত্রনা গুলি থেকেই এই কটি লাইনের সৃষ্টি, তাই এই লেখাটিকে মানবিক দৃষ্টকোন থেকে বিচার করবেন এই বিশ্বাস মনে আছে। তবে রাজনৈতিক স্বার্থে এর ব্যবহার করবেন না, এই অনুরোধ রইল। অনেক অনেক ধন্যবাদ কবি সুনীতি দেবনাথ’কে।